Lutfun Nahar

458 Added | 4 Magazines | 2 Likes | @lutfunnahar902 | Keep up with Lutfun Nahar on Flipboard, a place to see the stories, photos, and updates that matter to you. Flipboard creates a personalized magazine full of everything, from world news to life’s great moments. Download Flipboard for free and search for “Lutfun Nahar”

রেসিপি :- প্রণ বিরিয়ানি রাঁধুনি :- Shahnaz Shimul Rahman -------------------------------------------- যা যা লাগবে : চালের জন্য : বাসমতি বা যেকোনো সুগন্ধি চাল ২ কাপ দারচিনি ১ টি লবন ১/২ চা চামচ লবঙ্গ ৪/৫ টি এলাচ ৪/৫ টি * ১ লিটার পানি গরম করে তাতে আস্ত গরম মশলা আর লবন দিন। পানি ফুটে উঠলে তাতে আগে থেকে ভিজিয়ে রাখা চাল ঢেলে দিন। চাল ফুটে উঠলে পানি ঝরিয়ে আলাদা করে রাখুন। চাল ভিজিয়ে রাখার কারণে আর গরম পানির কারণে খুব তারাতারি চাল সিদ্ধ হয়ে যাবে। চিংড়ির জন্য : চিংড়ি ৪০০ গ্রাম (খোসা ছাড়ানো ) আদা-রসুন বাটা ২ চা চামচ লবন সামান্য মরিচ গুড়া ১ চা চামচ দারচিনি ১টি আস্ত জিরা ১ চা চামচ তেজপাতা ১ টি এলাচ ৫ টি পেয়াজ বেরেস্তা ১/২ কাপ টকদই ১ কাপ তেল ১/২ কাপ ধনে পাতা কুচি পালং শাক কুচি (optional ) ১ কাপ মাশরুম ১/২ কাপ কুচি করা (optional ) ** চিংড়ি ভালোভাবে ধুয়ে পানি ঝরিয়ে তাতে আদা বাটা , রসুন বাটা ,মরিচ গুড়া আর লবন দিয়ে মাখিয়ে রাখুন ৩০ মিনিট। ** প্যানে তেল গরম করে গরম মশলা গুলো দিয়ে দিন। ** সুগন্ধ বের হলে তাতে চিংড়ি , মাশরুম দিয়ে ৩/৪ মিনিট ভাজুন মাঝারি আচে। ** ভাজা চিংড়ি গুলো তুলে আলাদা করে রাখুন। ** একই তেলে টকদই ,পেয়াজ বেরেস্তা ,ধনে পাতা দিন। ৫ মিনিট রান্না করে এতে আবার ভাজা চিংড়ি গুলো দিয়ে দিন। ** ২মিনিট রান্না করুন ,এইসময় প্যান ঢেকে রাখুন। ** ঢাকনা খুলে সিদ্ধ চাল দিয়ে দিন ,পালং শাক দিন। ** ঢেকে মাত্র ৫ মিনিট রান্না করুন।লবন চেখে দেখুন ,কম মনে হলে আরো দিন . গরম গরম পরিবেশন করুন মজাদার চিংড়ি বিরিয়ানি !!

রেসিপি :- তন্দুরি চিকেন বিরিয়ানী রাঁধুনি :- নদী সিনা। By : (priyo.com) ---------------------------------- উপকরণ ১: মুরগি এক কেজি চার টুকরা আদা রসুন বাটা দুই চা চামচ গরম মসলা গুঁড়া এক চা চামচ তন্দুরি মসলা দুই চা চামচ লেবুর রস দুই টেবিল চামচ ঘি দুই টেবিল চামচ সয়াবিন তেল দুই টেবিল চামচ টক দই পৌনে এক কাপ লবণ স্বাদমতো এবং জর্দার রং পছন্দ মত উপকরণ ২: পোলাওয়ের চাল ৫০০ গ্রাম গরম পানি দেড় লিটার আদা বাটা এক চা চামচ আস্ত এলাচ, দারুচিনি, তেজপাতা, লবঙ্গ তিনটি করে কাঁচা মরিচ পাঁচটি লবণ স্বাদমতো গুঁড়ো দুধ এক টেবিল চামচ চিনি এক চা চামচ পেঁয়াজ কুচি আধা কাপ ঘি এক কাপ কেওড়া বা গোলাপ জল এক টেবিল চামচ প্রণালি ১: -মুরগি চার টুকরা করে ধুয়ে ভালোভাবে পানি নিংড়ে নিন। মুরগির গায়ে ছুরি দিয়ে আঁচড় কেটে দিন। -সব উপকরণ দিয়ে মুরগি ম্যারিনেট করে রাখুন দুই ঘণ্টা। -এবার মুরগির টুকরাগুলো ২০ মিনিট গ্রিল করুন। -হালকা বাদামি রং হবে। প্রণালি ২: -চুলায় হাঁড়ি চাপিয়ে ঘি দিন। -গরম হলে পেঁয়াজ কুচি দিয়ে হালকা বাদামি বেরেস্তা করে দিন। অর্ধেক বেরেস্তা তুলে রাখুন। -এবার গোটা গরম মসলা দিয়ে আগে থেকে ধুয়ে রাখা চালে আদা বাটা দিন। -চাল সামান্য ভেজে পানি দিন। গুঁড়ো দুধ ও লবণ দিয়ে নেড়ে ঢেকে দিন। -চাল ফুটে উঠলে কাঁচা মরিচ, চিনি ও মটরশুঁটি দিয়ে নেড়ে ঢেকে দিন। -পোলাওয়ের পানি টেনে এলে অর্ধেক পোলাও উঠিয়ে গ্রিল করা মোরগ দিয়ে বাকি পোলাও দিয়ে ঢেকে ওপরে কেওড়া জল ছড়িয়ে ৩০ মিনিট দমে রাখুন। -তুলে রাখা পেঁয়াজ বেরেস্তার মিশিয়ে নিন। হয়ে গেলে বাটিতে ঢেলে পরিবেশন করুন।

Log In or Sign Up to View

This Facebook post is no longer available. It may have been removed or the privacy settings of the post may have changed.

অল্প খরচে ঝটপট মজার স্ন্যাক্স- পটেটো টোস্ট

<b>(প্রিয়.কম)</b> বিকাল হলেই একটু ভাজা পোড়া খেতে সকলের মন চায়। বিশেষ করে এমন বৃষ্টিভেজা দিন হলে তো কথাই নেই। কিন্তু রোজ রোজ কি আর সময় মেলে এটা-সেটা তৈরি …

রেসিপিঃ ডিমের কোরমা উপকরণঃ -সিদ্ধ ডিম ৮ টি -টক দই ১ কাপ -মিষ্টি দই আধা কাপ -বেরেস্তা আধা কাপ -পেঁয়াজ কুচি ১ কাপ -পেঁয়াজ বাটা ৩ টেবিল চামচ -আদা বাটা ১ টেবিল চামচ -রসুন বাটা ১ টেবিল চামচ -বাদাম বাটা ২ টেবিল চামচ -ঘি আধা কাপ -তেল ১ কাপ -গরম মসলা- এলাচ, দারচিনি, লবঙ্গ কয়েকটা -কিসমিস ২ টেবিল চামচ -তেজপাতা ২ টি -লবণ পরিমাণমত প্রণালীঃ প্যানে তেল ও ঘি গরম করে সিদ্ধ করা ডিম হাল্কা ভেজে নিন। ডিম ভাজা হলে অন্য একটা পাত্রে উঠিয়ে রেখে ঐ তেলে এলাচি, তেজপাতা, দারুচিনি ও পেঁয়াজ কুচি দিয়ে নাড়তে থাকুন। এরপর পেয়াজ বাটা, আদা বাটা,বাদাম বাটা,রসুন বাটা্‌ দিয়ে কিছুক্ষন কষাতে থাকুন। মশলা হালকা বাদামী হলে তাতে ডিম ও দই দিন। সাথে পানি ও লবন দিন। ঝোল মাখা মাখা হয়ে আসলে কিসমিস দিয়ে নামিয়ে উপরে বেরেস্তা ছিটিয়ে দিয়ে পরিবেশন করুন ।

আম দইয়ের সহজ ললি আইসক্রিম

<b>(প্রিয়.কম)-</b> বেশ গরম পড়েছে। এই গরমে ঠান্ডা ঠান্ডা আইসক্রিম খেতে কার না ভালো লাগে বলুন? আর তা যদি হয় আমের ললি আইসক্রিম তাহলে তো কথাই নেই। এমনিতেই সময়টা …

এগ ফ্রাইড রাইস উইথ লেমন গ্রাস http://bit.ly/1jyLwyn অনেকে সহজে এবং কম সময়ে রান্না করতে পারবেন এই সুস্বাদু ফ্রাইড রাইস। যা লাগবে ডিম ২ টা সিদ্ধ আতপ কিম্বা বাসমতি চালের ভাত গাজর মিহি কুচি বরবটি কুচি লবন পরিমানমত লেমন গ্রাস পেস্ট ২ চা চামচ অল্প টেস্টিং সল্ট এখানে ক্লিক করে পুরোটা দেখে নিনঃ http://bit.ly/1jyLwyn #রেসিপি #রান্নাবান্না #সাজগোজ

স্পন্জ মিষ্টি

স্পন্জ মিষ্টি ডেজার্ট, রান্নাবান্না4 Comment<p>উপকরণ:<p>ছানা<p>দুধ ১ লিটার<br>• সিরকা ১/২ কাপ + পানি ১/২ কাপ একসাথে মিশিয়ে নিন<p>সিরার জন্য<p>চিনি ১ ১/২ কাপ<br>• পানি ৩ …

ফুচকা

উপকরণঃ <br>১ কাপ সুজি<br>২-৩ টেবিল চামচ ময়দা<br>১/৪ চা চামচ বেকিং সোডা<br>লবণ<br>তেল<br>পানি ( ডো তৈরি করতে )<p>পদ্ধতিঃ<p>সব শুকনো উপকরণ মিক্স করে নিয়ে তাতে প্রয়োজন মত পানি দিয়ে …

কেরামেল ছানার পুডিং

কেরামেল ছানার পুডিং ডেজার্ট, রান্নাবান্নাOff<p>উপকরণ :<br>দুধ ১ লিটার<br>ডিম ৪ টা<br>চিনি ১ /২ কাপ<br>মাওয়া ১/৪ কাপ<br>এলাচি পাউডার ১/৪ চা চামচ<br>কেরামেলের জন্য চিনি ৪ টেবিল …

কালোজাম

যা যা লাগবেঃ<p>–মিল্ক পাউডার এক কাপ <br>–সুজি এক টেবিল চামচ (কয়েক মিনিট গরম পানিতে ভিজানো )<br>–ময়দা এক চা চামচ <br>–ডিম একটা <br>–ফুল ক্রিম মিল্ক প্রয়োজনমত <br>–বেকিং …

রেসিপিঃ পিজ্জা

রেসিপিঃ পিজ্জা মেইন ডিস, রান্নাবান্না2 Comment<p>ফাস্টফুড প্রেমিদের কাছে পিজ্জা অনেক জনপ্রিয় নাম। মুখে জল আসা পিজ্জা খেতে চলে যাই পিজ্জা হাট, শরমা …

কেমন পোশাকে মানাবে আপনাকে? মডেলঃ তানজিদা তুষা গড়ন যদি হয় চিকনঃ একটু ভারী কাপড়ের ফোলা কাপড় পরতে হবে। গায়ে লেগে থাকে এমন কাপড়ের সালোয়ার-কামিজ পরবেন না। শাড়ির ক্ষেত্রেও এমন শাড়ি পরবেন যা একটু ফুলে ফেঁপে থাকে। ভারী কাজের, গাঢ় রঙের- সবই তারা পরতে পারেন, এতে স্বাস্থ্য একটু ভালো দেখাবে। ছাপার পোশাকের ক্ষেত্রে বড় বড় ছাপার ড্রেস নির্বাচন করুন। কিন্তু কখনই গায়ে লেগে থাকে এমন পোশাক পরবেন না,এতে আরও রোগা দেখাবে। মাঝারি গড়ন যাদেরঃ মাঝারিরা সব ধরনের পরতে পারলেও, এমন সালোয়ার-কামিজ পরবেন না যা বেশি ফুলে থাকে। এতে করে খানিকটা মোটা লাগতে পারে। শাড়ির ক্ষেত্রে বেশি ফুলে থাকে এমন শাড়ি, যেমন – টিস্যু বা মসলিন পরলে স্বাস্থ্য ভারী মনে হবে। তারা মোটামুটি সব কাজের সব প্রিন্টের শাড়িই পরতে পারেন। গড়ন মোটার দিকে হলেঃ ফুলে থাকে এমন মচমচে কাপড়ের সালোয়ার-কামিজ পরবেন না। শাড়ির ক্ষেত্রে গোলগাল মেয়েরা অবশ্যই ফুলে থাকে এমন শাড়ি কিংবা খুব ভারী কাজের যেসব শাড়ির পুরো জমিনে কাজ ভর্তি – এমন শাড়ি পরবেন না। এতে আরও মোটা দেখাবে। মোটা গড়নের মেয়েরা শরীরের সাথে লেগে থাকে এমন শাড়ি নির্বাচন করবেন। বেশি গাঢ় রঙের শাড়ি পরলেও মোটা লাগবে। ভারী জরি পাড় ধরনের শাড়িতেও মোটা লাগবে। কাতান পরলে শুধু পাড়-আঁচলে কাজ করা বা মাঝে হালকা ছিট ছিট কাজ করা শাড়ি পরুন। সিফন হলে কিছুটা ভারী কাজের পরতে পারেন। কেননা এ শাড়িগুলো শরীরে লেগে থাকে। টিস্যু, মসলিন, ফুলে থাকা শাড়ি মোটেই পরবেন না। প্রিন্টের শাড়ি যথাসম্ভব এড়িয়ে চলুন। মোট কথা নিজেকে বেশি মোটা লাগে- এমন শাড়ি কখনো পরা উচিত নয়। আরও পড়তেঃ http://bit.ly/ThI0T1 #সাজগোজ

থাই চিকেন বল

থাই চিকেন বল মেইন ডিস, রান্নাবান্নাOff<p>‘চিকেন বল’ বড়দের পাশাপাশি বাচ্চারাও অনেক পছন্দ করে থাকে। শুধু বিকেলের নাস্তা হিসেবেই নয়, দুপুর বা রাতের খাবারের …

সুগন্ধি কাহন

সুগন্ধি ব্যবহারের প্রতি কম বেশি সবারই দুর্বলতা আছে। তাই সৌন্দর্য সচেতন মেয়েরা প্রায়শই সাজের অংশ হিসেবে বিভিন্ন ব্র্যান্ডের সুগন্ধি ব্যবহার করেন। …

Out of Stock. So don't request for any price n others Inquiry.....plz. Don't try to copy any text or image without our permission. Copyright © SWCBD

Out of Stock. So don't request for any price n others Inquiry.....plz. Don't try to copy any text or image without our permission. Copyright © SWCBD

ফখরুদ্দিন বাবুর্চির বিখ্যাত চিকেন সাসলিক। ঘরেই ফখরুদ্দিন বাবুর্চির রেসিপির স্বাদ গ্রহণ করার জন্য তাঁর বিখ্যাত চিকেন সাসলিক রান্না করার পদ্ধতি আজ আপনাদের জন্য দেয়া হলো। যে একবার এই সাসলিক খেয়েছেন, তিনি অবশ্যই মনে রাখবেন দীর্ঘদিন। এবার আর মনে করা করি নয়, নিজেই বানিয়ে ফেলুন ফখরুদ্দিন বাবুর্চির বিখ্যাত চিকেন সাসলিক।- উপকরণ- মুরগীর মাংস- ২ কেজি পরিমান এলাচের গুঁড়া- ১ চা চামচ রসুন বাটা- আধা চা চামচ লবন-পরিমানমতো টোস্ট বিস্কিট-১ পাউন্ড সাদা গোল মরিচ গুড়া-১ টেবিল চামচ দারুচিনি গুঁড়া- ১ চা চামচ আদা বাটা- ১ টেবিল চামচ মরিচের গুঁড়া- ১ টেবিল চামচ জয়ত্রি- পরিমানমতো ডিম- ৫ টা গাজর- ৫০০ গ্রাম (গোল করে কাটা) পেয়াজ- ৫০০ গ্রাম (বড় টুকরো করা) টমেটো সস- পরিমান মতো প্রনালী- প্রথমে মুগীর মাংস ছোট ছোট টুকরো করতে হবে এবং ভাল ভাবে ধুয়ে নিয়ে সাথে সব মসলা দিয়ে (ডিম ও বিস্কিটের গুঁড়া বাদে) মাখাতে হবে। পেঁয়াজ ও গাজর ছোট টুকরো করে কেটে নিতে হবে । এবার কাবাবের প্রতিটি কাঠিতে ৫ টুকরা মাংস,৩ টুকরাপেঁয়াজ ও ২ টুকরা গাজর দিয়ে শাসলিক আকারে গাঁথতে হবে। ডিমে অল্প টমেটো সস দিয়ে ফেটে নিতে হবে। এবার ফেটানো ডিমে সাসলিকের কাঠিটি চুবিয়ে বিস্কিটের গুঁড়ায় ভালোভাবে গড়িয়ে নিতে হবে। এরপর ডুবো তেলে ভেজে নিতে হবে। যারা ডুবো তেলে ভাজা খেতে চাইছেন না কিংবা ডিম/ বিস্কিটের গুঁড়া এড়িয়ে যেতে চাইছেন, তারা কাঠিতে গাঁথার পর ওপরে হাল্কা করে টমেটো সস মাখিয়ে তাওয়ায় বা প্যানে সেঁকে নিবেন। চাইলে সস দিয়ে ফেটানো ডিমে চুবিয়ে তারপরেও প্যানে ভাজতে পারেন।

চটপটে চিকেন সাসলিক উপকরণ হাড় ছাড়া মুরগীর মাংস – ২৫০ গ্রাম ( কিউব করে কাটা ) ক্যাপসিকাম – ২ টি ( কিউব করে কাটা ) পেঁয়াজ কিউব করে কাটা – ৮ টুকরা ম্যারিনেট করার জন্য রসুন বাটা – ২ টেবিল চামচ পেঁয়াজ বাটা – ১ টেবিল চামচ আদা বাটা – ১ চা চামচ সয়া সস – ১ চা চামচ টমেটো সস – ২ টেবিল চামচ সরিষার তেল/অলিভ অয়েল – ১ টেবিল চামচ লবন – স্বাদ মতো গোল মরিচের গুঁড়া – ১ চা চামচ প্রনালি- -ম্যারিনেট করার সব উপকরন দিয়ে মুরগীর মাংসের টুকরাগুলো মাখিয়ে সারা রাত ফ্রিজে রেখে দিন। সারারাত না হলে অন্তত দুই ঘণ্টা। -পরের দিন আগে থেকে পানিতে ভিজিয়ে রাখা কাবাবের কাঠিতে প্রথমে একটি মুরগীর টুকরা গাঁথুন। -তারপর একে একে ক্যাপসিকাম ও পেঁয়াজ টুকরা গাঁথুন। তারপর এবার চিকেনের টুকরা গেঁথে নিন। -এইভাবে কয়েকটি সাসলিক তৈরি করে নিন। -এবার ওভেনে ২২৫ ডিগ্রি তাপমাত্রায় ২০ মিনিট গ্রিল করে নিন। যাদের ওভেন নেই তারা তাওয়াতে অল্প তেল দিয়ে সাসলিক গুলো হালকা আঁচে সোনালী করে ভেজে নিন। -রাইস বা নান রুটির সাথে পরিবেশন করতে পারেন দারুন স্বাদের চিকেন সাসলিক ।

রেসিপিঃ কেকের ক্রিম বানানোর পদ্ধতি ----------------------------------------- সৌজন্যে - *হৃদয় * ক্রিম তৈরি ************ উপকরণ-- -নরম মাখন ১০০ গ্রাম -আইসিং সুগার বা চিনি বেটে ছেঁকে নেওয়া ১ কাপ -ঠান্ডা তরল দুধ ৩ টেবিল চামচ -ভ্যানিলা এসেন্স আধা চা চামচ প্রণালীঃ- -মাখনের সাথে আইসিং সুগার মিশিয়ে নিন চামচ দিয়ে -বড় পাত্রে নিয়ে ইলেক্ট্রিক বিটার দিয়ে বিট করুন প্রথমে লো পাওয়ারে পরে হাই পাওয়ারে -একটু পর দুধ মিশান -এরপর ভ্যানিলা মিশান -বিট করুন ১০ মিনিট, যেন আইসিং সুগার গলে যায় ভাল করে -ক্রিমি ক্রিমি হয়ে আসলে ফ্রিজে রেখে দিন ১ ঘন্টা -নামিয়ে কিছুক্ষন পর কেক ডিজাইন করুন -ডিম ফেটার যেই বিটার পাওয়া যায় সেটা দিয়েও করতে পারেন, সময় লাগবে বেশি আর একটু কষ্টও হবে। -কালার করতে চাইলে ফুড কালার মিশিয়ে বিট করে ফ্রিজে রাখতে হবে ২/৩ ঘন্টা, তাহলে কালারটা ফুটে উঠবে। ****** দয়া করে কপি করে থাকলে পেজের নাম উল্ল্যেখ করবেন তা না হলে যে তৈরি করেছে তার নাম দিবেন । অনুগ্রহ করে কপি করে নিজেদের পেজের নামে চালাবেন না । ধন্যবাদ ...

Jorget with blouse pc Code ESP 2 Price BDT 4200 tk For detail information pls send a message on Facebook or call me on 01914554710

PLL21012 - Tk. 3,500.00 : DISCOUNT PRICE : TK : 3,200.00 ***********SOUL OUT ******** Chiffon Georgette

Weightless Jorget Saree with Blouse pc. "Do not copy this pic"

ভারতের বিখ্যাত খাবার "পাও ভাজি"র দারুণ সহজ রেসিপি

<b>(প্রিয়.কম)</b> পাও ভাজি ভারতের এক বিখ্যাত খাবার। পাও হল বড় বড় গোল রুটি, আর ভাজি বলতে বিভিন্ন সবজি দিয়ে বিশেষ ভাবে তৈরি করা এক ধরনের ভাজিকে বোঝায়, যা খেতে …

নিজেই তৈরি করুন মুখরোচক সিঙ্গারা Admin: * Prodip ** উপকরণ:১. আলু -১/২ কেজি ২. মৌরি -১/২ চা চামচ ৩. জিরা -১/২ চা চামচ ৪. মেথি ১/২ চা চামচ ৫. পেঁয়াজ ২ টি ৬. কাঁচামরিচ ৪-৬ টি ৭. আদা ছেঁচা- ২ চা চামচ ৮. জিরা টালা এবং গুঁড়ো- ১ চা চামচ ৯. দারচিনি গুঁড়ো- ১ চা চামচ ১০. ময়দা ২ কাপ ১১. কালজিরা ১ চা চামচ ১২. তেল ভাজার জন্য প্রয়োজন মত প্রণালী: -আলু খোসা ছাড়িয়ে মটরের মত ছোট ছোট টুকরা করে নিতে হবে। কড়াইয়ে ৩ টেবিল চামচ তেল গরম করে মৌরি, জিরা ও মেথি একসাথে মিশিয়ে তেলে ফোড়ন দিন। পেঁয়াজ, কাঁচামরিচ, আদা ও ১টি তেজপাতা দিয়ে ভাজুন ও আলু দিন। - একটু ভাজা হলে ১ চা চামচ লবণ ও ৩ টেবিল চামচ পানি দিয়ে ঢেকে মৃদু আঁচে রান্না করুন। আলু সিদ্ধ হয়ে গেলে নেড়ে নেড়ে ভাজতে হবে যেন আলু ভাজা ভাজা হয় এবং একটু ভেঙ্গে ভেঙ্গে যায়। জিরা ও দারচিনির গুঁড়া দিয়ে নামিয়ে ঠাণ্ডা করতে হবে। ঠান্ডা হলে আলু ২৪ ভাগ করে হাতের মুঠায় ঠেসে গোল করে নিতে হবে। এতে খামিরে ভরতে সুবিধা হবে। -ময়দায় ৪ টেবিল চামচ তেল দিয়ে ময়ান দিন। কালজিরা মেশান। আধা কাপ পানিতে ১ চা চামচ লবণ গুলে এই পানি আন্দাজমতো দিয়ে ময়দা মথে নিন। খামির শক্ত হবে। এক ঘণ্টা রেখে দিন। -খামির ভালো করে মথে ১২ ভাগ করে নিন। একভাগ ডিম এর আকারে বেলে ছুরি দিয়ে কেটে দু’ভাগ করে নিন (লম্বায় না কেটে পাশে কাটলে ভালো)। -একভাগ দু’হাতে ধরে কোণ বা পানের খিলির মত ভাঁজ করুন। ভিতরে ভর্তি করে ঠেসে আলুর পুর দিন। খোলামুখে পানি লাগিয়ে ভালভাবে এঁটে দাও দিন প্যকেটের মত। নীচের সুচালো অংশ একটু মুড়ে দিন। চওড়া মোড়ানো দিক উপরে দিয়ে সিঙ্গারা একটি থালায় সাজিয়ে রাখ। এভাবে সব সিঙ্গারা তৈরি করে নিন। ভাজার জন্য- -কড়াইয়ে দেড় কাপ তেল মৃদু আঁচে অনেকটা সময় গরম করে নিন। আচ বেশি হলে সিঙ্গারার চেহারা নষ্ট হয়ে যাবে। অর্ধেক সিঙ্গারা একবারে তেলে ছাড়ুন। মৃদু আঁচে ১৫-২০ মিনিট ভাজুন। হালকা বাদামি ও মচমচে হলে নামিয়ে নিন। জিরা, তেঁতুলের চাটনী, মেয়েনেজ বা টমেটো সসের সাথে গরম সিঙ্গারা পরিবেশন করুন।